বিভাগ : জুন-২০১৭

সম্পাদকীয় : স্বাগতম জান্নাতের প্রস্তুতি মাস রমযান

পবিত্র মাহে রমযান উপলক্ষে মাসিক আল-জান্নাতের অগণিত পাঠক-পাঠিকা, মু‘মিন মুসলমান ভাইবোনদের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানাচ্ছি। মাহে রমজানের সাথে আল- জান্নাতের একটি সম্বন্ধ আছে। এই সম্বন্ধ তার নামের কারণে। হয়তবা প্রতিমাসে তাতে যে লেখাগুলো ছাপা হয়, তারও কারণে। কেননা, আল-জান্নাত পাঠকদের সামনে জান্নাতে যাওয়ার সুন্দর পথ রচনার সাধনায় নিয়োজিত। এখানে যত লেখা ছাপা হয়

পবিত্র রোযার বিধান : শিক্ষা ও উদ্দেশ্য / মাওলানা আহমদ মায়মূন

রমজানের রোযার বিধান দিতে গিয়ে আল্লাহ তাআলা পবিত্র কুরআনে বলেন, তোমাদের জন্য রোযা ফরজ করা হয়েছে, যেমন ফরজ করা হয়েছে তোমাদের পূর্ববর্তীদের জন্য; যাতে তোমরা মুত্তাকী হতে পার। [সূরা বাকারা: ১৮৩] রোযাকে আরবীতে সওম বলা হয়। ‘সওম’ মানে বিরত থাকা, বেঁচে থাকা। রোযার মধ্যে পানাহারসহ কিছু একান্ত কর্মকা- থেকে বিরত থাকতে হয়, এজন্য রোযাকে ‘সওম’

অফুরান রহমত ও বরকতের বেহেশতি সওগাত তারাবীহ্ নামায / ড. মুহাম্মদ ঈসা শাহেদী

মাহে রমযানের একটি বিশেষ আকর্ষণ নামাযে তারাবীহ্। বলা যায়, এটি এ মাসের আধ্যাত্মিক অলংকার ও সৌন্দর্য। রমযানের চাঁদ দেখা যাওয়ার পরই শুরু হয় এ নামায। মুসল্লীদের ঢল নামে মসজিদে মসজিদে। যারা অবহেলায় এতদিন ঠিকমত নামায আদায় করেনি, তারাও সারীবদ্ধ হয় নামাযের কাতারে। এশার নামাযেই উপচে পড়ে মসজিদ। এশার পর শুরু হয় তারাবীহ্। দু’রাকাত করে দীর্ঘ

বিবাহের ক্ষেত্রে রাসূল সা.-এর উত্তম আদর্শ / ড. মুফতী আবদুল মুকীত আযহারী

বিবাহ নবীগণের সুন্নাত শিশু অধিকারের সপ্তম অধিকার হলো : শিশু বড় হলে তাকে বিয়ে দেয়া। আল্লাহ তাআলা বলেন, তোমাদের মধ্যে যারা অবিবাহিত (পুরুষ হোক না নারী) তাদেরকে বিবাহ করিয়ে দাও এবং তোমারেদ মধ্যে দাস ও দাসীদের মধ্যে যারা সৎকর্মপরায়ণ, তাদেরও (বিবাহ করিয়ে দাও)। যদি তারা অভাবী হয় আল্লাহ তাআলা নিজ অনুগ্রহে তাদেরকে ধনী বানিয়ে দেবেন।১

আল-কুরআনে সাহাবীদের যত জিজ্ঞাসা : হালাল বস্তুনিচয় সংক্রান্ত জিজ্ঞাসা / মাওলানা মুজিবুর রহমান

সাহাবায়ে কেরামগণের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ জিজ্ঞাসা ছিল হালাল বস্তুসামগ্রী সংক্রান্ত ব্যাপারে। এরশাদ হচ্ছে, ‘তারা আপনাকে জিজ্ঞাসা করে কী কী বস্তু তাদের জন্য হালাল।’ [সূরা মায়েদা : আয়াত ৪] উল্লিখিত জিজ্ঞাসার জবাব আল্লাহ তাআলা পবিত্র কুরআনে খুব তাৎপর্যপূর্ণভাবেই প্রদান করেছেন। সুবিস্তৃত সেই জবাবে যাবার পূর্বে এমন জিজ্ঞাসার প্রেক্ষাপট যৌক্তিকতা সম্পর্কে যৎকিঞ্চিত আলোচনা আবশ্যক বলে মনে করছি। তাফসীর

মানব হত্যার ভয়াবহ পরিণাম / মুফতী পিয়ার মাহমুদ

তাবৎ দুনিয়া আজ বদ্ধভূমি। জল-স্থল সর্বত্রই শুধু লাশ আর লাশ। কখন কোথায় কে প্রাণ হারাবে তা আন্দাজ করার কোন উপায় নেই। বোমায় পোড়ে খাক হবে, নাকি বুলেটের আঘাতে ঝাঝরা হবে, না অন্য কোন অভিনব কায়দায় বেঘোরে প্রাণ দিবে জানা নেই। কোলের শিশু থেকে অশীতিপর বৃদ্ধও নিরাপদ নয় আপন ঘরেও। আজব এই পৃথিবীতে আশরাফুল মাখলুকাত মানব

রমজান, রোযা ও যাকাত-ফিতরার বিস্তারিত মাসায়েল / মাওলানা মুহাম্মদ হেমায়েত উদ্দীন

রমজানের রোজা সুবহে সাদেক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত নিয়ত সহকারে ইচ্ছাকৃতভাবে পান, আহার ও যৌন তৃপ্তি থেকে বিরত থাকাকে রোজা বলা হয়। প্রত্যেক আকেল  (বোধ সম্পন্ন), বালেগ (বয়সপ্রাপ্ত) ও সুস্থ নর-নারীর উপর রমজানের রোজা রাখা ফরজ। ছেলে-মেয়ে দশ বৎসরের হয়ে গেলে তাদের দ্বারা (শাস্তি দিয়ে হলেও) রোজা রাখানো কর্তব্য। এর পূর্বেও শক্তি হলে রোজা রাখার অভ্যাস

সোনালি ফায়সালা / সৈয়দা সুফিয়া খাতুন

আযানের অলৌকিক ক্ষমতা: কাজী আবুল হাসান মোহাম্মদ বিন আবদুল ওয়াহেদ হাশেমী এক ব্যবসায়ী সম্পর্কে বর্ণনা করেন, তিনি নিজের সম্পর্কে নিজেই বলেন, বাগদাদের এক আমীরের (গভর্ণর) কাছে আমার অনেক সম্পদ আমানত স্বরূপ ছিল। আমি তার কাছে আমার মাল চাইলে সে টাল-মাটাল করতে লাগল; বরং আমার হক্ব দিতে অস্বীকার করল। আমি সরকারের বিভিন্ন কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ করলাম।

পিতামাতাকে সন্তুষ্ট রাখার কয়েকটি নীতিমালা আবদুল মালেক মুজাহিদ

আমি (লেখক) আমার বাস্তব জীবনে দেখেছি যে, পিতামাতা দুনিয়াদারই এমনকি এর চেয়েও সামনে এগিয়ে গিয়ে তাঁরা কোন চারিত্রিক দুর্বলতার মধ্যে জড়িয়ে পড়–ন না কেন, তখনও তাঁরা নিজেদের সন্তানদেরকে অত্যন্ত উঁচু মানের চরিত্রবানরূপে দেখতে চান। তাঁদের আকাঙ্খা হয় যে, তাঁদের সন্তানগণ কুরআন কারীম পাঠ করুন, নামায রোযার পাবন্দ হোক। পিতামাতা নিজেরা যতই মন্দ কাজে লিপ্ত থাকুন

কবিতা ও ছড়া

মিরাজুন্নবী সা. সৈয়দা সুফিয়া খাতুন মিরাজে গেলেন আমাদের নবী আল্লাহর ডাকে জিব্রীল এসে জাগালেন তাঁরে মধ্যরাত্রির ফাঁকে। বোরাকে চড়ি জিব্রীল সাথে মসজিদে আক্্সায়, কদম রাখেন জেরুজালেমে, বায়তুল মুকাদ্দাস যথায়। দাঁড়িয়ে সেথায় আম্বিয়াকুল আকুল ভক্তি সনে জানান স্বাগতম মোদের নবীরে উষ্ণ-আলিঙ্গনে। অতঃপর দিলেন মহাশূন্য পাড়ি সপ্তাকাশে ঊর্ধ্বভ্রমণ হুর-গিলমান, ফেরেশতা জানায় সালাম আনত নয়ন। শেষ মঞ্জিলে এসে

জীবনজিজ্ঞাসা

তারাবীহর কাযা প্রসঙ্গে রাকিব হাসান, কলমাকান্দা, নেত্রকোনা। প্রশ্ন: যদি কোন মারাত্মক সমস্যার কারণে কোন একদিন তারাবীহর নামায পড়তে না পারি, তাহলে কি পরের দিন ওই তারাবীহর কাজা পড়া যাবে? তারাবীহ না পড়লে কি পরের দিন রোযা রাখা যাবে? বিস্তারিত জানাবেন। উত্তর: তারাবীহর নামায সুন্নাতে মুআক্কাদা। এর সময় ইশার পর থেকে সুবহে সাদিক পর্যন্ত। এসময়ের মধ্যে

ঈমানের দৃঢ়তা / উম্মে হাবিবা নুসরাত

ছোট্ট বালক ইউসুফ। বয়স দশ। রূপে, গুণে ইউসুফি সৌন্দর্যেরই দ্যোতি ছড়াচ্ছে যেনো। পিতা ইসলামি সালতানাতের সুলতান নাজমুদ্দিন আইয়ুব। এমন একটি ছেলে পেয়ে বড্ডো খুশি তিনি। ছেলের ইমানদীপ্ত কথা, আচরণে মাঝেমধ্যে মুগ্ধ হয়ে যান। ও একসময় ইসলামি সালতানাতকে ক্রুসেডমুক্ত করবে, এটাই তার বিশ্বাস। ১১৪৮-১১৪৯ সালের মাঝামাঝি সময়। ইসলামি শিক্ষায় দীক্ষিত করতে ইউসুফকে একটা কাফেলার সঙ্গে তিকরিতে

প্রথম রোজার স্মৃতি / ইব্রাহিম হাসান হৃদয়

পড়ালেখার সুবাদে আমাকে নানার বাড়ি থাকতে হতো। তাই জীবনের প্রথম রোজা রেখেছি নানার বাড়িতেই। তখন ছিলো শীতকাল। প্রচ- শীতের মাঝেও প্রতিদিন সেহরি খেতে খেতে উঠতাম। নানু একা বলে আমাকে ঘুম থেকে জাগিয়ে তুলতেন প্রতিদিনই। নিয়মিত সেহরি খেলেও নানু আমাকে রোজা রাখতে দিতেন না। বলতেন, তুমি এখন ছোট। তুমি দুপুরে একবার খেলে তোমার রোজা দুইটি হবে।

অনুতপ্ত / আহমদ আবদুল্লাহ

নাহিন বাবা-মার খুব আদুরের মেয়ে। পড়ালেখা, কাজকর্ম সব বিষয়ে তার কোনো জুড়ি নেই। বাবা-মা এমন মেয়ে পেয়ে খুব খুশি। কিন্তু ঠিক তার বিপরীতমুখী ছিলো রাফি। পড়ালেখায় ছিলো না মনোযোগ। খেলাধুলা আর অনর্থক কাজে সময় ব্যয় করা রাফির অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। তার কাজকর্মে বাসার সবাই অতিষ্ঠ। বিশেষ করে বাবা-মা। রাফিকে সবাই বুঝাতো, কিন্তু ফলাফল হতো শূন্য।

রোজায় সুস্থ থাকার দশ উপায়

আত্মশুদ্ধির মাস মাহে রমজান। সিয়াম সাধনার মাধ্যমে চলে এ আত্মশুদ্ধির প্রক্রিয়া। হঠাৎ করেই বছরের চিরাচরিত অভ্যাসগুলো পাল্টে যায় এ মাসে। এ সময়ে সবচেয়ে বড় পরিবর্তন আসে খাদ্যাভ্যাসে। এ পরিবর্তন মানিয়ে নেওয়া প্রথম দিকে একটু কঠিন হয়ে যায়। তাই শরীরের উপর প্রভাব পড়ে। সিয়াম সাধনার এ মাসটি আপনি কিভাবে কাটাবেন সে সম্পর্কে থাকছে বিশেষজ্ঞদের কিছু পরামর্শ।


Hit Counter provided by Skylight