মাসিক সংরক্ষণাগার: January ২০১৪

সম্পাদকীয় : প্রিয় নবী সা.-এর জীবনাদর্শেই রয়েছে কামিয়াবী

সমস্ত প্রশংসা একমাত্র আল্লাহ তাআলার জন্য। অসংখ্য দরূদ ও সালাম বর্ষিত হোক সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব মুহাম্মদ সা. এর উপর এবং তাঁর অনুসারীদের উপর ।আল হামদুলিল্লাহ, মহান প্রভুর কাছে অসংখ্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি যে, দীনি প্রকাশনার ধারাবাহিকতায় আমরা তৃতীয় বর্ষে পদার্পণ করলাম। এটা আল্লাহ তাআলা অশেষ দয়া। ২০১৪ এর জানুয়ারি মাসটির সাথে আরবি রবিউল আওয়াল মাসও

বিশ্বনবী সা. এর নবুওয়াতি মিশন মানবতার শান্তি ও মুক্তির পথ : মুফতী মানসুর আহমাদ

ধরাধামে বিশ্বনবী সা.-এর শুভাগমন মানবতার প্রতি আল্লাহর অপার অনুগ্রহ আল্লাহপাক বলেন প্রকৃত ব্যাপার এই যে, আল্লাহ মুমিনদের প্রতি অতি বড় অনুগ্রহ করেছেন, যখন তিনি তাদের কাছে তাদেরই মধ্য হতে একজন রাসুল পাঠিয়েছেন। যিনি তাদের সামনে আল্লাহর আয়াতসমূহ তিলাওয়াত করেন, তাদের অন্তরকে পরিশুদ্ধ করেন এবং তাদেরকে কিতাব ও হিকমত শিক্ষা দেন। যদিও এর আগে তারা সুস্পষ্ট

রাসুল সা. এর সিরাত মানব জাতির জন্য সর্বোত্তম আদর্শ : মাওলানা আলী উসমান

আম্বিয়ায়ে কেরাম এবং আওলিয়ায়ে কেরামের সীরাতের পাশাপাশি সূরত নিয়ে আলোচনা করার মাঝেও রয়েছে মানব জাতির জন্য কল্যাণ এবং রহমত। স্বয়ং রাসুল সা. নিজেই মেরাজের রাতে নবীদের, কাকে কেমন দেখেছেন তার বর্ণনা সাহাবায়ে কেরামের নিকট করেছেন। উক্ত কথার প্রেক্ষাপটে মেশকাতের বিখ্যাত ব্যাখ্যাকার মোল্লা আলী কারী রহ. বলেন, এতে প্রতীয়মান হয় যে, পূর্ববর্তী মনীষীর গঠন প্রকৃতির বিবরণ

বান্দার হক আদায়ে নেকি বদির লেনদেনসংকলনে : সৈয়দা সুফিয়া খাতুন

সহজ হিসাবহযরত আয়েশা রা. থেকে বর্ণিত, একদা রাসুলুল্লাহ সা. নামাযের মধ্যে দু’আ করছিলেন- ‘হে আল্লাহ আমার সহজ হিসাব নিও।’ আমি আরজ করলাম, ইয়া রাসুলাল্লাহ সা. ‘সহজ হিসাব’ কথার উদ্দেশ্য কি? হুযুর সা. এরশাদ করেন, আমলনামার মধ্যে শুধু নজর বুলিয়ে নেয়া (ভালভাবে পর্যবেক্ষণ না করা)। যার হিসাব ভালভাবে নেয়া হবে সে ধ্বংস হবে। [মুসনাদে আহমদ] কঠিন

মোহাম্মাদ সা.-এর নবুওয়াত লাভ ও পরবর্তী আরবের অবস্থা : মাওলানা আব্দুস সাত্তার

হযরত মোহাম্মদ সা. চল্লিশ বছর যাবৎ এমন এক অভিভাবকহীন ও লাগামহীন জনসমাজে বসবাস করেছিলেন যেখানে সভ্যতা-সংস্কৃতির লেশ-মাত্র ছিল না। আর সমাজের এহেন অবস্থা হযরতের সা. কোমল হৃদয়কে ব্যথাতুর করে তুলতো। মোহাম্মদ সা. সমাজে অজ্ঞতার তিমির ব্যতীত কিছুই দেখতে পাননি। কাবায় যেতেন, দেখতেন, আল্লাহর পরিবর্তে তারা মূর্তি পূজা করছে; কাবা ত্যাগ করে সমাজে আসতেন, সেখানের অবস্থা

সাহাবিদের জীবন কাহিনী : হা. মোহাম্মদ রুহুল আমিন

১৯৩২ সাল। ঐতিহ্যবাহী নগরী মাদায়েন। যার বর্তমান নাম সালমান পার্ক। সালমান পার্ক একটি প্রাচীন জনপদ, যার অবস্থান ইরাকের রাজধানী বাগদাদ থেকে ৪০ মাইল দূরে। এক সময় এটি ছিল পারস্য সম্রাজ্যের রাজধানী। কিন্তু কালক্রমে ছোট হতে হতে এটি আজ ছোট জনবসতির আকারে এসে ঠেকেছে। সালমান পার্কে সাহাবায়ে কেরামের মধ্যে সর্বপ্রথম কবরস্থ হন বিখ্যাত সাহাবি হযরত সালমান

একজন জান্নাতি মহিলার ধৈর্যের পরীক্ষা : মোঃ আবু হানিফা

আতা বিন আবি রাবাহ রহ. থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস রা. আমাকে বললেন, “আমি কি তোমাকে জান্নাতের একজন নারীকে দেখাবো? আমি বললাম, হ্যাঁ। তিনি বললেন, “এই কালোমহিলাটি একদিন রাসুলুল্লাহ সা. এর কাছে এসে বললো, আমার মৃগী রোগ আছে এবং অজ্ঞান অবস্থায় আমার গায়ে কোনো কাপড় থাকেনা। দয়া করে আমার জন্য আল্লাহর কাছে দুআ

বিশ্ব ইজতিমা : দীনী দাওয়াতের এক মুবারক সম্মেলন : যোবায়ের বিন জাহিদ

বিশ্ব ইজতিমা বিশ্ব মুসলিমের এক অপূর্ব দীনী সমাবেশ। দাওয়াত ও তাবলিগের সূত্রে অনুষ্ঠিত এক মুবারক সম্মেলন। রাজধানী ঢাকার অদূরে অবস্থিত টঙ্গীর তুরাগ পাড়ে প্রতিবছর অনুষ্ঠিত হয় মুসলিম উম্মাহর এ মহান দীনী সমাবেশ। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে এখানে সমবেত হন ঈমানী চেতনায় উজ্জীবিত লাখ লাখ মুসলমান। ধনী-গরীব, শিক্ষিত-অশিক্ষিত, কর্মকর্তা-কর্মচারী নির্বিশেষে সবাই অংশগ্রহণ করেন এখানে। খোলা ময়দানে

রাসুল সা. এর জীবনের ঘটনা প্রবাহ : হাফেজ মাওলানা মুফতী আব্দুল বাসিত

১. নবীজির জন্ম : বসন্ত কালের সোমবার তাঁর জন্ম, এ ব্যাপারে সাবাই একমত। প্রসিদ্ধমতে ১২ই রবিউল আউয়াল সুবহে সাদিকের সময় নবীজি সা.-এর জন্ম হয়েছে। কাবা শরিফের উপর আবরাহার হস্তীবাহীনির হামলার ৫০দিন পর মুতাবেক ২২এপ্রিল ৫৭১খৃষ্টাব্দ। ঐতিহাসিক তাবারী এবং ইবনে খালদুনও ১২ই রবিউল আউয়াল জন্ম বলে উল্লেখ করেছেন। সোমবার তার জন্ম এই ব্যাপারে সবাই একমত। কিন্তু

সুরা ইয়াসিন এর আলোকে জীবনের চূড়ান্ত লক্ষ্য ও কর্তব্য : মীর লুৎফুল কবীর সা’দী।

ইয়াসিন পবিত্র কুরআনের ৩৬তম সুরা যা অবতীর্ণ হয়েছে পবিত্র মক্কাতে। এই সুরায় রয়েছে পাঁচটি করুকূ ও ৮৩টি আয়াত। ইয়াসিন শব্দটি হুরূফ আল-মুকাত্তা’আত। পবিত্র কুরআনের বিভিন্ন সুরার প্রথমে এ ধরণের বিচ্ছিন্ন অক্ষরসমূহ রয়েছে যার প্রকৃত অর্থ অন্তর্ণিহিত তাৎপর্য কেবলমাত্র আল্লাহ পাক জানেন। মহান স্রষ্টা আল্লাহ তাআলা সব জ্ঞানের নির্যাস বিজ্ঞানময় আল কুরআন নাযিল করেছেন তাঁর সর্বশেষ

মহানবী সা. এর পবিত্র আখলাক্ব : নাজমা সুলতানা

মানবজাতির ইতিহাসে মাঝে মাঝে এমন ক্ষণজন্মা মহাপুরুষের আবির্ভাব ঘটে যারা ইতিহাসের গতিধারাকে পাল্টে দেন। তাঁদের মহোত্তম জীবন, চরিত্র, আদর্শ ও কর্মতৎপরতায় নতুন সভ্যতার পতন ঘটে, জ্ঞান বিজ্ঞানের নতুন অধ্যায় রচিত হয়। মহানবী হযরত মুহাম্মদ সা. ছিলেন এমনি একজন মহামানব। তাঁকে শুধু অন্যসব মহামানবের মত একজন মহামানব বললে যথেষ্ট হবে না। তিনি ছিলেন সর্বদিক দিয়ে দুনিয়ার

গুহাতে আশ্রয় গ্রহণকারী তিন ব্যক্তির গল্প : মুফতী আমিরুল ইসলাম

عبد الله بن عمر ‏ ‏رضي الله عنهما ‏ ‏قال ‏ :سمعت رسول الله ‏ ‏صلى الله عليه وسلم ‏ ‏يقول ‏ ‏انطلق ثلاثة رهط ممن كان قبلكم حتى أووا المبيت إلى غار فدخلوه فانحدرت صخرة من الجبل فسدت عليهم الغار فقالوا إنه لا ينجيكم من هذه الصخرة إلا أن تدعوا الله بصالح أعمالكم فقال

চাই সচেতন জীবন : মাওলানা আমীরুল ইসলাম

মুসলিম বিশ্বের ইতিহাসে খলিফা আব্দুল মালিক বিন মারওয়ান রহ. [২৬-৮৬হি.] এর নামটি এক বিশেষ স্থান দখল করে আছে। দ্বীন ইসলাম যেসব মহিয়ান  খলিফাগণের মাধ্যমে চির উন্নত ও মহিমান্বিত হয়েছে, তাঁদের মাঝে তাঁর নামটিও বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। তিনি জ্ঞানে-গুনে, আখলাক-চরিত্রে এবং বিবেক-বুদ্ধিতে একেবারে অতুলনীয় ছিলেন। আবার ইনসাফ-ন্যয়বিচারেও তাঁর সুনাম-সুখ্যাতি কম ছিল না। এক কথায় তিনি ছিলেন একজন

ঈমানদার গরীব ধনীর পাঁচশত বছর পূর্বে জান্নাতে যাবে : সৈয়দা সুফিয়া খাতুন

এই ধরাতে আমরা সৃষ্টির সেরা। আমরা জান্নাতের সুসংবাদ পেয়ে, জাহান্নামের আযাবের কথা শুনে কেন যে ভয় পাই না? কিসে আমাদের বাধা দিয়ে রেখেছে! হে আল্লাহ! তোমার খাস বান্দা যারা, তারা সর্বক্ষণ তোমাকে পাওয়ার আশায় দিবানিশি অবিরাম লুটিয়ে পরেছেন জায়নামাজে। একমাত্র তোমাকে পাওয়ার আশায়, তোমার দরবারে কাটিয়েছেন নিদ্রাহীন রজনী। দিয়েছেন আমাদেরকে আলোর দিশা। কুরআন নিয়ে গবেষণা

আমি নেসা, তাই সম্মানিতা (পর্ব-২) : নূরে ইয়াছমিন ফাতেমা

আমরা নারীরা যেমন এক জনের স্ত্রী আবার অন্য দিকে অনেকের মা। মায়েরা যেভাবে সন্তানকে শিক্ষা দিবে, সন্তান সেভাবে গড়ে উঠবে এবং লালিত হবে। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে এর ব্যতিক্রম হতে পারে। সুশীলা মা সন্তানকে সুশিক্ষা দেওয়ার পরও কিছু কিছু সন্তানের মানুষের সভাব থাকেনা। এর কারণ হয়তোবা আল্লাহর ইচ্ছা, নতোবা খারাপ জেনারেসন থেকে খারাপ কিছু নিয়ে

উপকার করে খোঁটা দেয়া জঘন্যতম অপরাধ : মুফতি মুহাম্মাদ শোয়াইব

চুল পাকা রোধ কিভাবে কদান-সদকা করে কোনো মুসলমান ভাইয়ের উপকার করা একটি সাওয়াবের কাজ। মানুষকে দান-সদকা করে উপকার করার প্রতি গুরুত্বারোপ করে মহান আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেন,‘তোমরা সালাত আদায় কর যাকাত দাও এবং আল্লাহ তাআলাকে উত্তম ঋণ দাও। [সুরা মুজাম্মিল : ৭৩/২০] অন্যত্র তিনি বলেন, ‘তোমরা যদি আল্লাহ তাআলাকে উত্তম ঋণ দান কর তাহলে আল্লাহ

শয়তান সৃষ্টির ইতিকথা : সংকলন : আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ জোবায়ের

 ইবলিসের সিংহাসন সমুদ্রের উপর অবস্থিত হওয়ার প্রমাণ হলো, ইমাম আহমদ রহ.-এর হাদিস। তাতে জাবির ইবনে আবদুল্লাহ রা. বলেন, রাসুলুল্লাহ সা. বলেছেন- ইবলিসের সিংহাসন হলো সমুদ্রের উপর। প্রত্যহ সে তার বিভিন্ন বাহিনী প্রেরণ করে, যারা মানুষের মধ্যে হাঙ্গামা সৃষ্টি করে থাকে। মানুষের জন্য জঘন্য ফেতনা সৃষ্টি করে যে অনুচর, ইবলিসের নিকট মর্যাদায় সে সবার চাইতে

ইতিহাসের টুকরো কাহিনী : মাও. মোহাম্মদ সফিউল্লাহ

আল্লাহ তোমার মঙ্গল করুন ইতিহাসের পাতাকে যারা অলংকৃত করেছেন দয়া ও ধার্মিকতায় সহানুভূতি ও মহানুভবতায়, তাদের মধ্যে অন্যতম ব্যক্তিত্ব হলেন আব্দুল্লাহ ইবনে আউন রহ.। একবার কথা বলতে গিয়ে তার আওয়াজ তার আম্মার আওয়াজের চেয়ে উঁচু হয়ে যায়। একারণে তিনি দুটি গোলাম আজাদ করে দেন। তার মালিকানায় কিছু ভারাটে দোকান ছিল। তিনি সেগুলো মুসলমানদের কাছে কখনো

দেশ-বিদেশের খবর

নাফ নদীতে ১৫ মন ওজনের মাছ বাংলাদেশের সর্ব দক্ষিণে সীমান্ত উপজেলা টেকনাফের নাফ নদীতে জেলেদের জালে বিশাল আকারের ১৫ মন ওজনের  শাপলা (হওচ) মাছ জেলেদের জালে আটকা পড়ে। টেকনাফ উপজেলার নাফনদীতে হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া গ্রামের নুর মুহাম্মদের মালিকানাধীন টানা জালে বিশাল আকারের শাপলা বা হওচ মাছ ধরা পড়েছে। মাছটির ওজন কমপক্ষে ১৫ মণ হবে বলে

কায়রাওয়ানী দুলহানমূল : জুর্জি যীদান, ভাষান্তর : নাজীবুল্লাহ ছিদ্দীকী

বিষমিশ্রিত মধু: খলিফা খাবার খাওয়া শেষ করলেন। ঐ বাবুর্চি শরাব নিয়ে তাঁর সামনে পরিবেশন করে বলল, জাহাপনা! এই শরাবটি খাবার হজমে সহায়ক। এটি পান করলে সাথে সাথেই বদহজম দূর হয়।’ খলিফা মুঈয শরাবের পেয়ালাটি নেওয়ার পূর্বেই হামদুন উঠে পেয়ালাটি নিয়ে বললেন, জনাব! মাফ করবেন। ইতোপূর্বে এই শরাবটি আমি দেখিনি এবং চাখিওনি। তাই আপনার আগে আমারই

শয়তানের ডায়েরি : মোছাঃ উম্মে হাবিবা [কাফেলা- ০০৭]

পির আলী- আচ্ছা, আল্লাহ তাআলা হজরত মুছা আ. কে এইরূপ কঠিন জালালী মেজাজ দিয়া কেন তৈরি করিলেন? শয়তান- হুযুর! হজরত মুছাকে এইরূপ মেজাজ দিয়া সৃষ্টি করার মূল কারণটি অতি রহস্যজনক, তাহা আপনাকে পরে বলিতেছি। উহার পূর্বে প্রকাশ্য কারণের কথা শুনুন। হুযুর! দুনিয়ায় আল্লাহ তাআলা দেশ কালও পরিস্থিতি অনুসারে যথাযোগ্য নবী প্রেরণ করিয়া থাকেন। তাহা যদি


Hit Counter provided by Skylight