মাসিক সংরক্ষণাগার: February ২০১৩

আদর্শ রাষ্ট্র নায়ক মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম

সৈয়দা সুফিয়া খাতুন : উপস্থাপনা: পৃথিবীর সূচনা লগ্ন থেকে অদ্যাবদি এর রাষ্ট্র শাসকদের ইতিহাস পর্যালোচনা করলে দেখা যায় যে, যেসব গুণাবলীর ভিত্তিতে কোনো শাসককে আদর্শ হিসেবে পরিগণিত করা হয়, সেই নিরিখে বিশ্বের কোনো কোনো শাসক কোনো কোনো দেশে কিঞ্চিৎ কিংবা আংশিকভাবে সফল হলেও তাদের কেউ-ই আদর্শ রাষ্ট্র শাসক হিসেবে ইতিহাসে স্থান করে নিতে পারেননি। যারা

মহানবী সা.-এর কালজয়ী জীবনাদর্শ বিশ্ব মানবতার মুক্তি সনদ

ড. আ ফ ম খালিদ হোসেন : বিশ্ব মানবতার মুক্তি সনদ রবিউল আউয়াল  মাসে আমাদের প্রিয় রাসূল, সর্বশেষ নবী এবং বিশ্ব মানবতার ইহলৌকিক ও পারলৌকিক মুক্তির দূত হযরত মুহাম্মদ সা.-এর আগমন ঘটেছিল এবং এ মাসে তিনি দুনিয়া থেকে বিদায় নিয়ে আল্লাহ তা’য়ালার সান্নিধ্য প্রাপ্ত হন। মাসটি মুসলিম উম্মাহর জন্য একই সাথে আনন্দের, আবেগের ও বেদনার।

জান্নাতের বর্ণনা

সংকলনে: সৈয়দা সুফিয়া খাতুন : পূর্ব প্রকাশিতের পর…… জান্নাতের তাঁবু এবং গম্বুজ হযরত আবু মুসা আশআ’রী রা. থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন, নিশ্চয়ই জান্নাতে মুমিনদের জন্য এমন তাঁবু হবে যা একটি মুক্তা দ্বারাই নির্মিত (মুক্তাটি বড় হবে)। যার ভিতর দিক হবে ডিমের খোসার মত, প্রশস্ততা হবে ষাট মাইল। তার প্রত্যেক কোণায় মুমিনদের

অসুস্থ হয়ে মৃত্যুবরণকারী কবর আজাব থেকে নিরাপদ

সংকলনে: মাওলানা মা’সূম বিল্লাহ্ আসজাদ : পূর্ব প্রকাশিতের পর…… হযরত আবু হুরায়রা রা. বর্ণনা করেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তি অসুস্থ হয়ে মারা যায় তার শহীদী মৃত্যু হয়, তাকে কবর আজাব থেকে মুক্তি দেয়া হয় এবং সে সকাল-সন্ধ্যা বেহেশত থেকে রিজিক পায়। [মিশকাত] সীমান্ত প্রহরী মুজাহিদ এবং শহীদের মর্যাদা হযরত মেকদাম ইবনে

বিশ্ব ইতিহাসের স্র্রেষ্ট ব্যক্তিত্ব : মুহাম্মদ সা.

মুফতী আশ্রাফুল ইসলা : ইসলামী ইতিহাসের দৃশ্যপটে হযরত মুহাম্মদ সা. -এর সুমহান এবং উন্নত ব্যক্তিত্ব এতটা সমুজ্জ্বল পরিদৃষ্ট হয় যে, শুরু থেকে আজ অব্দি বড় বড় ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্ব যাদেরকে বিশ্ব জাহানের নায়ক (ঐবৎড়বং) হিসেবে গণ্য করা হয় সকলেই তাঁর মোকাবিলায় তুচ্ছ বলে প্রতীয়মান হয়। পৃথিবীর মহান ব্যক্তিবর্গের মধ্যে এমন একজন ব্যক্তিও নেই যার পূর্ণতার দ্বীপ্তি

সফল রাষ্ট্র পরিচালনায় রাসূল সা. এর কৌশল

ড. মোহাম্মদ বেলাল হোসেন : রাষ্ট্র সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা। এটি এমন একটি রাজনৈতিক কাঠামোর নাম যার মাধ্যমে নির্দিষ্ট কোন ভূখন্ডের অধিবাসীরা তাদের সামাজিক জীবনের আইন-শৃঙ্খলা, নিরাপত্তা ও উন্নয়ন সাধনের জন্য একটি নিয়মতান্ত্রিক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করেন। পাশাপাশি ভূখন্ডকে স্থিতিশীল ও শীক্তশালী করা, এর ব্যবস্থাপনা, শিক্ষা-সংস্কৃতির বিকাশ সাধন, আইন ও নিরাপত্তা ইত্যাদির অ¯্রগতি যখন নিয়মতান্ত্রিকতার সাথে চলতে

শিশুদের প্রতি মহানবী সা. এর ভালোবাসা

শরীফ আবদুল গোফরান : বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ সা. পৃথিবীর সেরা মানুষ। মানবজাতির জন্য তিনি অনুপম আদর্শ। তাঁর ৬৩ বছরের জীবনে আমাদের জন্য রয়েছে চলার পাথেয়। মহানবী  সা.  এর শিক্ষা ও সাহচর্যে যারা নিজেদেরকে গঠন করেছেন, তারা হচ্ছেন সাহাবী বা সাথী। মানুষের জন্য তাঁরা তারকাস্বরূপ। মহানবী সা. নিজেই বলেছেন, ‘আমার সাহাবীগণ হচ্ছেন আকাশের তারকাস্বরূপ’। আজকের শিশু-কিশোরদের

রাসূল সা. -এর আদর্শই বর্তমান সমস্যা সমাধানের একমাত্র পথ

মোস্তাক আহাম্মদ : দুনিয়ার জীবন সকলের জন্য একটি পরীক্ষাকাল। পরীক্ষা হচ্ছে এ বিষয়ের-প্রকৃত সত্যকে না দেখে নিজেদের চিন্তা ও বুদ্ধিবৃত্তির সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে আমরা তাকে উপলব্ধি ও জানতে পারি কিনা এবং এ উপলব্ধি করার ও জানার পর নিজেদের নফস ও তার কামনা বাসনাকে নিয়ন্ত্রিত করে প্রকৃত সত্যের নিরীখে নিজেদের কর্মকান্ডকে সঠিক পথে চালাতে পারে কিনা।

সীরাতুন্নবী ও আজকের মুসলিম উম্মাহ

মূল : শায়খুল ইসলাম জাস্টিস আল্লামা মুফতী তাকী উসমানী : অনুবাদ : মুফতী পিয়ার মাহমুদসীরাতুন্নবী ও আজকের মুসলিম উম্মাহ : যারা আল্লাহ ও শেষ দিবসের আশা রাখে এবং আল্লাহকে অধিক স্মরণ করে, তাদের জন্যে রসূলুল্লাহর মধ্যে উত্তম নমুনা রয়েছে। [সূরা আহযাব-২১] নবী জীবনের পবিত্র আলোচনা মহা সৌভাগ্যের ব্যাপার আমাদের সমাজে, আমাদের দেশে বিশেষ করে এই

প্রিয়নবীর মানবিকতা ও আমাদের জীবন

খন্দকার মনসুর আহমদ : মানবতাকে শান্তি ও মুক্তির আলোকিত পথের সন্ধান দিতে পৃথিবীতে প্রেরিত হয়েছিলেন রাহমাতুল্লিল আলামীন হযরত মুহাম্মদ মুস্তফা  সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। হযরত আদম আ. হতে যে মানবতার উদ্বোধন ঘটেছিলো তা সর্বোচ্চ উৎকর্ষে পৌঁছে পূর্ণাঙ্গতা লাভ করে তাঁর আগমনের মধ্য দিয়েই। কোনো মতাদর্শের কালজয়ী সাফল্যার্জন তখনই সম্ভব হয়ে থাকে, যখন সে আদর্শের অগ্রপথিক

নবী জীবনে সামাজিকতা

মাওলানা শিব্বীর আহমদ : এক অন্ধকার যুগের কথা। চারদিকে কেবল হানাহানি হিং¯্রতা আর অন্যায়ের ছড়াছড়ি। যেন মানবতার লেশমাত্রও অবশিষ্ট নেই। পাশবিকতায় যেন পশুও পরাজিত! দীন-ধর্ম বলতে শুধুই মূর্তিপুজা। সত্যের সন্ধানে ব্যাকুল রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মানুষের সমাজ ছেড়ে অন্ধকার হেরাগুহায় ধ্যানমগ্ন হোন। বেশকিছুদিন তিনি সেখানে কাটিয়েছেন। কিছু খাবার-পানীয় সাথে করে চলে যেতেন সেখানে। কয়েকদিন পর

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর মক্কি জিন্দেগী

মোঃ আরিফ বিল্লাহ খান : উপক্রমনিকা হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর জীবনী ছিল দুই ভাগে বিভক্ত, মক্কী ও মাদানী। সৃষ্টিকুলের সর্বশ্রেষ্ঠ হওয়া সত্ত্বেও রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম খুব সাধারণভাবে জীবন যাপন করে গেছেন। মক্কায় জন্মগ্রহণ থেকে শুরু করে মদীনা ইন্তিকাল পর্যন্ত তাঁর জীবনের ব্যাপ্তি ছিল ৬৩ বছর। তাঁর সম্পূর্ণ জীবন আলোচনা করা এই ক্ষুদ্র প্রয়াসে

নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় মহানবী সা.

নাজমা সুলতানা : ইসলামপূর্ব জাহিলিয়্যাতের যুগে নারী জাতির কোন মূল্য ছিল না; বরং নারী সত্তাটাকেই পরিবারের জন্য, সমাজের জন্য, বংশের জন্য কলঙ্ক, অপমান ও অভিশাপ মনে করা হত। কিন্তু বিশ্বের বুকে মহানবী সা. এর মাধ্যমে নারীজাতি ধর্মে কর্মে, শিক্ষাক্ষেত্রে, ব্যক্তিগত ক্ষেত্রে, পারিবারিক ক্ষেত্রে, সামাজিক ক্ষেত্রে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে এভাবে প্রত্যেক ক্ষেত্রে ফিরে পেয়েছে তাঁদের সম্মান মর্যাদা

একনজরে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের জীবন চরিত

জন্ম : ৫৭০ খ্রিস্টাব্দ বংশ : মক্কার বিখ্যাত কুরাইশ বংশ পিতা : আব্দুল্লাহ মাতা : আমেনা পিতামহ : আব্দুল মুত্তালিব দুধ মা : হালিমা সা’দিয়া রা. (প্রথম দুধ মা ছিলেন আবু লাহাবের দাসী সুওয়াইবা) প্রতিষ্ঠিত শান্তি সংঘ : হিলফুল ফুজুল ধ্যানমগ্ন থাকতেন : হেরা গুহায় বক্ষ বিদারন : চার বার অহী লাভ : ৪০ বছর

মুসলিম উম্মাহর অধঃপতন : কারণ ও প্রতিকার

মুহাম্মাদ আনিসুর রহমান: আজ এমন একজন ব্যক্তির ভীষণ প্রয়োজন, যিনি উম্মাহর সে আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনবেন যা তাদেরকে উজ্জীবিত চেতনায় শুধু সামনে চলার পথ-নির্দেশ করবেন। যিনি তাদেরকে বলবেন, তোমাদের একটি গর্বিত অতীত ছিলো। বলবেন, তোমাদের সামনে স্বপ্নভরা একটি ভবিষ্যতও অপেক্ষা করছে। যিনি তাদেরকে সাবধান করে বলবেন, স্বীয় দীন সম্পর্কে তাদের সীমাহীন অজ্ঞতার কথা, হতাশাব্যঞ্জক গাফলতির কথা।

হোদায়বিয়ার সন্ধি : একটি পর্যালোচনা

ড. হেলাল উদ্দীন মুহাম্মদ নোমান: মহান আল্লাহ তাঁর সর্বশেষ রাসূল মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে রিসালাতের নেয়ামতের সাথে সাথে একজন শ্রেষ্ঠ সমরকুশলী, বিচক্ষণ রাজনীতিবিদ এবং একজন দক্ষ সমাজপতি ও নেতা হিসেবে প্রেরণ করেছেন। যার প্রমাণ এত অল্প সময়ে মাত্র হাজার খানেক (পক্ষে-বিপক্ষে) প্রাণের ক্ষতির বিপরীতে প্রায় দশ লক্ষ বর্গমাইল এলাকায় শান্তির ধর্ম ইসলাম প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে চরম

মুসলমানদের ১৫ টি প্রশংসনীয় চারিত্রিক গুণ

মাওলানা আলী উসমান : ইসলামী শরীয়ত হচ্ছে একটি পরিপূর্ণ জীবন পদ্ধতি যা সকল দিক থেকে সার্বিকভাবে মুসলমানের ব্যক্তিগত জীবনকে গঠন করার ব্যাপারে অত্যন্ত গুরুত্বারোপ করেছে এসব দিকের মধ্যে গুনাবলি শিষ্টাচার ও চরিত্রের দিকটি অন্যতম। ইসলাম এদিকে অত্যন্ত গুরুত্বারোপ করেছে। তাইতো আকীদা ও আখলাকের মাঝে সম্পর্ক স্থাপন করে দিয়েছে, যেমন নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর ‘মক্কী জীবন’ : ভারতবর্ষের মুসলমানদের একটি বাস্তব নমুনা

মাওলনা আব্দুস সাত্তার : ইসলাম হলো বিশ্বজনীন এবং চিরস্থায়ী একটি ধর্ম। ইসলামের শিক্ষা-দীক্ষা এবং এর (খোদায়ী) বিধানাবলী দুনিয়ার প্রতিটি প্রান্তে বসবাসকারী সকল মুসলমানের জন্য এককভাবে আমলের যোগ্য। এই আন্তর্জাতিক এবং খোদায়ী ধর্মের পয়গাম্বর শেষ যুগের নবী হযরত মুহাম্মদ মোস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের জীবনের প্রতিটি দিক ও ক্ষেত্র। যা সকল মুসলিম উম্মাহর জন্য একটি পরিপূর্ণ আদর্শ

সাম্য, ঐক্য ও মানবতার নবী

মুফতি মুহিউদ্দীন : প্রকৃতপক্ষে বর্তমান যুগ এবং আগামী দিনের অনাগত যুগ সম্পূর্ণরূপে মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ত্যাগ-তিতিক্ষা ও বিপ্লবের কাছে চির ঋণী। তিনি জ্বলন্ত অগ্নি, ফুটন্ত কড়াই, ডুবন্ত ফেরি এবং নাঙা তলোয়ারের নিচ থেকে মানবতাকে উদ্ধার করেছেন। অতপর মানবতার হাতে তুলে দিয়েছেন এক নতুন উপহার যা মানবতাকে দান করেছে এক নতুন জীবন, নতুন উদ্যম, নতুন

ওহুদের যুদ্ধ : জয়-পরাজয় না ‘অর্জন’

অধ্যাপিকা হাফিজা ইসলাম : ওহুদের যুদ্ধ সংঘটিত হয় বদর যুদ্ধের এক বছর পর অর্থাৎ তৃতীয় হিজরীর শাওয়াল মাসে। ওহুদ একটি পর্বতের নাম। এই পর্বতের সম্মুখস্থ ময়দানে এই যুদ্ধ সংঘটিত হয় বলে এর নাম ওহুদ যুদ্ধ। নবুওয়াতির পূর্বে নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ছিলেন মক্কাবাসীদের অতি আদরণীয় ও প্রিয় মিত্র। কিন্তু নবুওয়াত প্রাপ্তির পর তিনি যে


Hit Counter provided by Skylight