শীতে শরীরের যত্ন


যখন আমরা শীতের কথা কল্পনা করি সাধারণভাবে আমাদের চোখের সামনে ভেসে ওঠে শিশির ভেজা মাঠ, রুক্ষ প্রকৃতি , উত্তরের শীতল বাতাস। পৌষ ও মাঘ এই দু মাস শীতকাল। এসময়ে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার অবনতি ঘটে। তবে টিপস জানা থাকলে কাটিয়ে ওঠা যায় এ শারীরিক বিপর্যয়। শীত সবচেয়ে বেশি টাটকা শাক সবজি পাওয়া যায়। রুক্ষ প্রকৃতির এ এক অদ্ভুত সুন্দর উপহার।
* আপনার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার উন্নতি করুন। আপনার খাবারে যেন ৫০ থেকে ৬০ শতাংশ কার্বোহাইড্রেট, ৩০ শতাংশ চর্বি এবং ১০ শতাংশ প্রোটিন থাকে। অন্য কথায়, আপনার খাবার যেন ব্যাপকহারে নিরামিষ জাতীয় হয়। মাংস, সসেজ, দুধ এবং দুধজাত খাবার যতটা সম্ভব কম খাবেন, তবে মাছ খাবেন নিয়মিত।
* ভিটামিন, মিনারেল এবং  অপরিহার্য উপাদানগুলো প্রধানত থাকে টাটকা ফলমূল এবং শাক সবজিতে। আপনি দিনে পাঁচ ধরনের টাটকা ফল ও সবজি খাবার অভ্যাস করুন, এতে আপনার শরীরে এসব গুরুত্বপূর্ণ উপাদানের কোনোটার ঘাটতি হবে না। আর মনে রাখবেন, টিনজাত সবজিতে এসব উপাদানের ঘাটতি থাকে। অনেক ভিটামিন রান্নার সময় নষ্ট হয়ে যায়।
* যদি আপনি আপনার খাবারে দৈনিক দুকোয়া রসুন অন্তর্ভুক্ত করেন তাহলে আপনার সংক্রমণের ঝুকি অনেক কমে যাবে। রসুন শ্লৈষ্মিক ঝিল্লির রক্তসঞ্চালন প্রক্রিয়াকে উৎসাহিত করে এবং শক্তিশালী করে যাতে সংক্রমণ না হয়। লবনের পরিবর্তে আপনি আপনার খাবারকে রসুন মিশিয়ে সুস্বাদু করতে পারেন। তবে আপনার যদি রসুনের অপ্রীতিকর গন্ধ ভালো না লাগে। তাহলে আপনি এটার ক্যাপসুল ধরনটি গ্রহণ করতে পারেন।
* শরীর সুস্থ রাখার জন্য ব্যায়ামের প্রয়োজন রয়েছে। গ্রীষ্মে আমাদের বাড়ির বাইরে বেশি থাকা পড়ে এবং ব্যায়াম করাও বেশি হয়। সত্যিকার অর্থে শীতকালে আমরা ঘরের মধ্যে থাকতে আমরা বেশি পছন্দ করি, তাই আপনাকে অবশ্যই বিচক্ষণতার সাথে খাবার গ্রহণ করতে হবে। অতিরিক্ত খাবার পরিহার করবেন, এবং সেই সঙ্গে অ্যালকোহলও।
* সকালে ঘুম থেকে উঠে শিশির ভেজা মাঠে পাঁচ থেকে দশ মিনিট দৌড়ান। তারপর দ্রুত পা দুটো মুছে ফেলে মোজা পরে নিন।
* আপনি নিয়মিত গরম ও ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করুন, এতে শুধু আপনি তরতাজাই হবেন না কিংবা এটা শুধু আপনার কান্তিই দূর করে না, এ ধরনের গোসল আপনার শারীরিক শক্তিও বাড়ে।
* পুরুষের ত্বক মহিলাদের ত্বকের চেয়ে পুরু। অনেকেই বিশ্বাস করেন যে পুরুষের জন্য ত্বকের যতেœর প্রয়োজন নেই। কী ভুল বিশ্বাস তাদের! পুরুষের ত্বকের যতেœর প্রয়োজন হয়। ত্বকের যতেœ সাবান ব্যবহারের অনুমতি দেয়া হয় না, তার বদলে হালকা ক্রিম সাবান ব্যবহার করতে পারেন। এটা ত্বকে তেল ফিরিয়ে আনে। এছাড়া এই ক্রিম ঠান্ডা আবহাওয়ার প্রভাবের বিরুদ্ধে সুরক্ষা দেয়।
* শীতে আপনি নিজেকে শক্ত করতে পারেন। যদি বাইরে খুব কুয়াশা থাকে, আপনি মুঠো ভর্তি শিশির নিন এবং মুখে ঘষুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Hit Counter provided by Skylight