ভালোবাসা এভাবেই উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পায় : আল জান্নাত

সাধারণত ছেলে সন্তানেরা শৈশব থেকেই মাতা-পিতার সাথে যেমন খুশী তেমন জীবন-যাপন করে। তাদের সুন্দর জীবন যাপনের সময় তারা পরিচালকদের সুদৃষ্টির ছায়ায় থাকে। তাই তখন তারা নিজের মনের চাহিদা অনুযায়ী চলতে অভ্যস্ত হয়ে যায়; কিন্তু যখন তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে যায় তখন তাদের চিন্তা-চেতনায় পরিবর্তন হওয়া উচিত। আর প্রত্যেককে এদিকে দৃষ্টি রাখা উচিত যেন তার চলার সাথী তার প্রতি সন্তুষ্ট থাকে। জীবনের এ নতুন পর্যায়ে কখনও যদি কোন সমস্যা বা তিক্ততা চলেও আসে তাহলে তা সংশোধনের এক সহজ পদ্ধতি আছে যা অবলম্বনে এ তিক্ততা আনন্দে পরিণত হতে পারে। আর তা হলো একে অপরকে সন্তুষ্ট রাখা।
আবু দারদা রা. একদিন তাঁর প্রিয়তমা স্ত্রীকে বলছেন, যদি আমি কখনও অসন্তুষ্ট হয়ে যাই তাহলে আমাকে সন্তুষ্ট করিয়ে নিবে। আর কখনও আমি যদি দেখি যে, তুমি মন খারাপ করে বসে আছ, তাহলে আমি তোমাকে সন্তুষ্ট করাব। যদি আমরা এমন না করি তাহলে আমরা একসাথে থাকতে পারব না।
ইমাম যুহরী রহ. যখন এ কথা শুনলেন, তখন তিনি বললেন বন্ধুত্ব ও ভালোবাসা এভাবেই উত্তরোত্তর উন্নত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Hit Counter provided by Skylight