বন্ধু একটু ফিরে দেখ : রুহুল নবীর

এক আল্লাহর সৃষ্টি, একই মানব থেকে বের হওয়া, একই জনপদে গড়ে ওঠা, একই খাবার খাওয়া, কিন্তু আমাদের মাঝে আর তাদের মাঝে কত পার্থক্য!
আমাদের জীবনযাপন আর তাদের জীবনযাপনের মধ্যে কত ফরাক। তাদের শরীর মাটির তৈরি আমাদের শরীরও মাটির তৈরি। তারাও কোন না কোন পিতা-মাতার ঔরসে জন্মগ্রহণ করেছে, আমরাও কোন না কোন পিতা-মাতার ঔরসে জন্মগ্রহণ করেছি। তাদেরও রাতের আঁধার কেটে ভোর আসে, আমাদেরও রাতের আঁধার কেটে ভোর আসে। তাদের পেটেও ক্ষুধা লাগে, আমাদের পেটেও ক্ষুধা লাগে। রাত্রিকালে তাদের চোখজুড়ে ঘুম আসে, আমাদের চোখজুড়েও ঘুম আসে। তারাও আমাদের মত আশা-আকাক্সক্ষা পূরণের স্বপ্ন দেখে দিন-রাতে।
আমরা প্রতিনিয়ত আমাদের চারপাশে ল করলে দেখতে পাবো, এমন হাজারও ব্যক্তি-পরিবার মানবেতর জীবনযাপনের মধ্যে রয়েছে।
তাদের মনও চায়, ভালো খাবার খেতে, গাড়িতে চড়তে, ভালো বিছানায় ঘুমাতে, ভালো পোশাক পরতে। কিন্তু তাদের আশা, তাদের স্বপ্ন, তাদের শখ পড়ে থাকে জীর্ণ-শীর্ণ ধূলিময় শরীরের মধ্যেই। তাদের চেহারায় স্বপ্নপূরণ না হওয়ার হতাশার প্রতিচ্ছবি। তাদের জীবনযাপনে রয়েছে এক করুণ দৃশ্য।
তাদের নাই কোন গুম হওয়ার চিন্তা, নাই জীবনের ঝুঁকি। যেখানে রাত হয় সেখানেই তাদের আবাস্থল। কখন রাস্তার পাশের মাটির উপর বিছানো কোন কিছুর উপর তাদের বিছানা হয় আবার কখন কোন কিছু বিছানো ছাড়াই শুধু ধূলা-মাটিই তাদের বিছানা হয়। প্রয়োজন হয় না একটু সুখের ঘুমের জন্য ঘুমের ট্যাবলেট খাবার। রাস্তার পাশে বা নর্দামায় পড়ে থাকা উচ্ছিষ্টগুলোই তাদের খাবার। সেগুলো খেয়েই তারা তৃপ্তির ঢেকুর তোলে। আমরা কখন কি দেখেছি তাদেরকে ভালোবাসার মনোভাব নিয়ে? জানতে চেয়েছি কখনো তাদের কাছে গিয়ে খাবার খেয়েছে কি-না বা তাদের এ অবস্থা হওয়ার কারণ কী?
আসুন আমরা সবাই মিলে আমাদের সামর্থ্য অনুযায়ী তাদের পাশে দাঁড়াই। নিজের খাবার থেকে কিছু তাদের মুখেও তুলে দিই। তাদের সুখ-দুঃখ একে অপরে ভাগ করে নিই।
তাদের পাশে দাঁড়ানো এবং তাদের সুখ-দুঃখের সাথি হওয়ার তাওফীক যেন আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে দান করেন। আমীন
মিরপুর, কুষ্টিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Hit Counter provided by Skylight