দেশ-বিদেশের খবর

ঈদের উপহার দিলাম ধরলা সেতু : প্রধানমন্ত্রী
ধরলা সেতুকে কুড়িগ্রাম-লালমনিরহাটের মানুষের জন্য ঈদ উপহার হিসেবে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট ও রংপুর অঞ্চলের মানুষের জন্য এই সেতুটি আমার প থেকে ঈদের উপহার হিসেবে নেবেন। এটি আপনাদের ঈদের উপহার হিসেবে দিলাম। আপনারা এই সেতু রণাবেণ করবেন, দেখেশুনে রাখবেন। বললেন প্রধানমন্ত্রী। রোববার (৩ মে) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়িয়ায় ‘শেখ হাসিনা ধরলা সেতু’র উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় তিনি এসব কথা বলেছেন।
প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘এই সেতুর ফলে এ এলাকার মানুষের যোগাযোগব্যবস্থার উন্নয়ন ঘটবে। ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার হবে। মানুষের যোগাযোগ অনেক সহজ হয়ে উঠবে। উত্তরবঙ্গের উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।’

নারীদের প্রকাশ্যে ঈদ জামাতে অংশ গ্রহণের অনুমোদন!
প্রথমবারের মতো প্রকাশ্যে মাঠে ঈদের নামাজ পড়ার অনুমতি পেয়েছেন ভারতের পশ্চিবিঙ্গ রাজ্যের বর্ধমান শহরের নারীরা। গতকাল রবিবার বর্ধমান কেন্দ্রীয় ঈদ কমিটির বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
জানা যায়, বর্ধমানের টাউন হলে কেন্দ্রীয়ভাবে প্রতি ঈদে নামাজ পড়া হলেও সেখানে শুধু পুরুষরাই অংশ নিতেন। তবে এবার থেকে নারীরাও সেখানে নামাজ পড়বেন।
রবিবার ওয়াকফ অ্যাস্টেট মোতাওয়াল্লি কমিটির দফতরে কেন্দ্রীয় ঈদ কমিটির বৈঠকে টাউন হল মাঠে ঈদের নামাজে নারীদের অংশগ্রহণ বিষয়ে প্রস্তাব ওঠে। কেন্দ্রীয় ঈদ কমিটি সেই প্রস্তাবে সায় দিলে প্রকাশ্যে ঈদের নামাজ পড়ার অনুমতি মেলে বর্ধমানের নারীদের।
বিষয়টি নিশ্চিত করে কেন্দ্রীয় ঈদ কমিটির সম্পাদক নূর আলম বলেন, ‘বৈঠকে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। তার মধ্যে নারীরা টাউন হলে নামাজ পড়তে চান বলে প্রস্তাব এসেছিল। সেটাও গৃহীত হয়েছে।’
মাদকবিরোধী অভিযানে রাজধানীতে ৯৬ জন গ্রেফতার
রাজধানী ঢাকায় মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযানে মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ৯৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
৩ জুন রবিবার রাতে পুলিশ ও র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) তাদের গ্রেফতার করে। এ সময় বিপুল পরিমাণ বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য জব্দ করা হয়েছে।
সহকারী পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া অ্যা- পাবলিক রিলেশনস) সুমন কান্তি চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, সকাল ৬টা পর্যন্ত ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন থানা ও গোয়েন্দা পুলিশ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৭০ জনকে গ্রেফতার করে।
এ সময় ৫ হাজার ৯৪৭টি ইয়াবা, ১কেজি ২০২ গ্রাম হেরোইন, ১৯ কেজি ৪০০ গ্রাম গাঁজা, ১০০ বোতল ফেনসিডিল, ১২৫ বোতল দেশি মদ ও ৬২টি ইনজেকশন জব্দ করা হয়। গ্রেফতার ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৫৩টি মামলা করা হয়েছে।
এদিকে র‌্যাব-২ রাজধানীর তেজগাঁও এবং মুহাম্মদপুর এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে ২৬জনকে গ্রেফতার করেছে। গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়েছে। ৬৪ জেলায় মাদক চালানে তৎপর ৩৬০০ শীর্ষ কারবারী।

বরিশালে ২০ মাদরাসা বন্ধ
বরিশালের ২০টি মাদরাসার একাডেমিক স্বীকৃতি বাতিলসহ অনলাইনে পাসওয়ার্ড, মাদরাসা কোড নম্বর ও ইআইআইএন নম্বর বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।
এসব মাদরাসা থেকে টানা দুই বছরে কোন শিক্ষার্থী দাখিল পরীায় অংশ না নেওয়ার ফলে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মাদরাসা শিা বোর্ড।
মাদরাসা শিা বোর্ড গত বুধবার এ সংক্রান্ত এক আদেশ জারি করেছে। এতে বরগুনায় ৫টি, বরিশালে ২টি, ভোলায় ৬টি পটুয়াখালীতে ৭টি মাদরাসা বন্ধ ঘোষণা করা হয়।
মাদরাসা শিা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ কে এম ছায়েফ উল্যা সাংবাদিকদের জানান, ২০১৭ ও ২০১৮ সালে ২০২টি মাদরাসা থেকে কোনো পরীক্ষার্থি দাখিল পরীায় অংশ নেয়নি। এর কারণ দর্শাতে মাদরাসাগুলোতে নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বেশির ভাগ মাদরাসা থেকে সেই নোটিশেরও কোনো জবাব পাওয়া যায়নি। তাই এসব মাদরাসা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

সব রোহিঙ্গা ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের ‘বিচিত্র’ শর্ত
বাংলাদেশে পালিয়ে আসা ৭ লাখ রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে রাজি হয়েছে মিয়ানমার।
তবে শর্ত, যদি তারা স্বেচ্ছায় ফিরে যেতে চায় কেবলমাত্র তাহলেই তাদের আশ্রয় দিবে দেশটি।
শনিবার সিঙ্গাপুরে আঞ্চলিক নিরাপত্তা সম্মেলনে ‘সাংগ্রি লা ডায়ালগে’ একথা জানিয়েছেন মিয়ানমারের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা থাউং তুন। খবর রয়টার্সের।
নিরাপত্তা সম্মেলনে মিয়ানমারের নিরাপত্তা উপদেষ্টাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, রাখাইন রাজ্যের পরিস্থিতি কি? মিয়ানমারকে জাতিসংঘের আরটুপি (রেসপন্সিসিভিলিটি টু প্রটেক্ট) ফ্রেমওয়ার্ক চালুর দিকে নিয়ে যাবে? কথিত এই আরটুপি ফ্রেমওয়ার্কটি ২০০৫ সালে জাতিসংঘের বিশ্ব সম্মেলনে গ্রহণ করা হয়।
এর মধ্য দিয়ে গণহত্যা, যুদ্ধাপরাধ, জাতিগত নিধনযজ্ঞ ও মানবতাবিরোধী অপরাধ থেকে নিজ দেশের জনগণকে রা এবং এই প্রতিশ্রুতিকে ঊর্ধ্বে তুলে ধরতে এক দেশ অন্য দেশকে সহযোগিতা করবে।
জবাবে মিয়ানমারের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা বলেন, ‘যদি স্বেচ্ছায় সাত লাখ রোহিঙ্গাকে ফেরত পাঠানো হয়, তাহলে আমরা তাদের গ্রহণ করতে রাজি আছি। এটাকে কি জাতিগত নিধন বলা যায়?’
‘রাখাইনে কোনো যুদ্ধ চলছে না, সুতরাং এটা কোনো যুদ্ধাপরাধ নয়। এটাকে মানবতাবিরোধী অপরাধের বিষয় হিসেবে বিবেচেনা করা যেতে পারে। কিন্তু এজন্য আমাদের পরিষ্কার প্রমাণ প্রয়োজন। গুরুতর এই অভিযোগ প্রমাণ করা উচিত এবং এটাকে হালকাভাবে নেয়া উচিত হবে না।’
আন্তর্জাতিক দাতব্যসংস্থা ডক্টরস উইদাউট বর্ডারস বলছে, ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাখাইনে কমপে ৯ হাজার ৪০০ রোহিঙ্গাকে হত্যা করা হয়েছে। এদরে মধ্যে শুধুমাত্র সহিংসতার কারণে প্রাণ গেছে ৬ হাজার ৭০০ জনের (নিহতদের ৭১.৭ ভাগ)। নিহতদের মধ্যে ৭৩০ শিশু রয়েছে; যাদের বয়স পাঁচ বছরের নিচে।
রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অভিযানকে জাতিগত নিধনে ‘পাঠ্যপুস্তকীয় উদাহরণ’ বলে মন্তব্য করেছে জাতিসংঘ। তবে অভিযানের শুরু থেকেই এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে আসছে দেশটি।
থাউং তুন বলেন, রাখাইনের যে আখ্যান প্রকাশিত হচ্ছে তা ‘অসম্পূর্ণ ও বিভ্রান্তিকর’। তিনি বলেন, রাখাইনের উত্তরাঞ্চলে যে মানবকি সংকট সৃষ্টি হয়েছে মিয়ানমার সেটাকে অস্বীকার করছে না। রাখাইনের মুসলিম জনগোষ্ঠী যে ভুক্তভোগী তা অস্বীকার করা হচ্ছে না। বৌদ্ধ ধর্মালম্বী রাখাইন, হিন্দু ও অন্যান্য সংখ্যালঘুরাও কম নিপীড়িত হচ্ছে না।
এই উপদেষ্টা জানান, দেশকে রার অধিকার রয়েছে সেনাবাহিনীর। তদন্তে যদি প্রমাণিত হয় তারা আইন লঙ্ঘন করেছে তাহলে পদপে নেওয়া হবে।

বিআরটিসির ঈদ স্পেশাল সার্ভিসে থাকছে ৯০৪ বাস; টিকিট বিক্রি ৫ জুন
ঈদে ঘরমুখো মানুষের সহজ ও আরামদায়ক যাত্রা নিশ্চিতের ল্েয বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট করপোরেশন (বিআরটিসি) আগামী ১৩ জুন থেকে ‘ঈদ স্পেশাল সার্ভিস’ এর ব্যবস্থা করেছে। আগামীকাল ৫ জুন থেকে এই স্পেশাল সার্ভিসের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে।
সোমবার মতিঝিলে বিআরটিসির প্রধান কার্যালয়ে স্পেশাল বাস সার্ভিসসহ অন্য প্রস্তুতি নিয়ে বিআরটিসির কর্মকর্তা ও ডিপো ম্যানেজারদের সঙ্গে সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
সভায় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও বিআরটিসির চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদ ভূঁইয়াসহ অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
বিআরটিসির এবারের ঈদ স্পেশাল সার্ভিসে থাকছে ৯০৪টি বাস। জরুরী প্রয়োজন মেটাতে ৫৪টি বাস স্ট্যান্ডবাই থাকবে ঢাকার বিভিন্ন স্থানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Hit Counter provided by Skylight