দেশ-বিদেশের খবর

আধুনগরে “নাইস হসপিটাল লিঃ”র ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন

লোহাগাড়ার অসহায়, দরিদ্র ও দুঃস্থদের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে “ইসমাইল আঞ্জুমান আরা ওয়েল ফেয়ার ট্রাষ্টে”র তত্বাবধানে এবং নোমান গ্রুপের অর্থায়নে আধুনগরে নির্মিত হতে যাচ্ছে “নাইস হসপিটাল লিমিটেড”। জানা যায় প্রায় ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ে অত্যাধুনিক এই হাসপাতাল নির্মিত হচ্ছে।
২৬ ফেব্রুয়ারি সোমবার উক্ত হসপিটালের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করেছেন নোমান গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম। ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আলহাজ্ব নুরুল ইসলামের সহধর্মিনী নোমান গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান ও মাসিক ‘আল-জান্নাতে’র সম্পাদক সৈয়দা সুফিয়া খাতুন এবং তাঁদের সুযোগ্য পুত্র নোমান গ্রুপের ডেপুটী ম্যানেজিং ডাইরেক্টর আবদুল্লাহ মোহাম্মদ জোবায়ের উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়াও ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠানের সুধী ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

মাওলানা মুজ্জাম্মিল হত্যাকারীদের দ্রুত বিচার দাবী ইমাম সমিতির

জৈন্তাপুরে ওয়াজ মাহফিলকে কেন্দ্র করে ঐতিহ্যবাহী হরিপুর বাজার মাদরাসার মেধাবী ছাত্র মাওলানা মুজ্জাম্মিল হত্যাকা-, সিনিয়র মুহাদ্দিস মাওলানা আব্দুস সালামসহ ছাত্রদের হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট করায় বাংলাদেশ জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেট মহানগরীর নেতৃবৃন্দ তীব্র নিন্দা, ােভ ও গভীর উদ্ধেগ প্রকাশ করেন।
নেতৃবৃন্দ বলেন, ওয়াজ মাহফিলসহ দীনি বিষয়ে বাড়াবাড়ি কারো জন্য কাম্য নয়, ওয়াজ মাহফিলে ডেকে নিয়ে হত্যা, মারপিট ইতিহাসের জঘন্যতম অপরাধ।
অভিযুক্ত মুশরিক মাজারপুজারী আটরশির সমর্থকরা সিলেটের মতো শান্ত শহরে বিশৃংখলা সৃষ্টির অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। এসব অপচেষ্টা প্রতিহত করা প্রশাসনেরই দায়িত্ব। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, মাদরাসা ছাত্র মুজ্জাম্মিল হত্যাকা-ে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে পরিস্থিতি শান্ত করাও স্থানীয় প্রশাসনের দায়িত্ব।
সাথে সাথে নিহতের পরিবার ও আহতদের চিকিৎসা সেবায় জেলা প্রশাসনের প থেকে উপযুক্ত তিপূরণ প্রদানের দাবি জানান বাংলাদেশ জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেট মহানগর এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ক্বারী মাওলানা শহীদ আহমদ ও সেক্রেটারি ক্বারী মাওলানা সিরাজুল ইসলাম।
মহানগর ইমাম সমিতির প্রচার সম্পাদক, শিবগঞ্জ হাতিমবাগ জামে মসজিদের ইমাম ও খতীব মাওলানা আশিকুর রহমান স্বারিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ইমাম নেতৃবৃন্দ বলেন, যে কোন পরিস্থিতিতে হক্কানী উলামায়ে কেরাম এলাকার সর্বসাধারণকে সাথে নিয়ে শান্তশিষ্টভাবে বুদ্ধিভিত্তিক মোকাবেলা করতে হবে।
বিপ্তিভাবে আন্দোলন না করে সম্মিলিত আন্দোলন, প্রতিবাদ করা ও প্রকৃত দোষীদের গ্রেফতার করতে প্রশাসনকে সহযোগিতা করার আহবানও জানান তারা।
এদিকে ২৮ ফেব্রুয়ারি বুধবার সমিতির নেতৃবৃন্দ ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি কারী মাওলানা শহীদ আহমদের নেতৃত্বে সংঘর্ষে আহত, সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীনদের দেখতে যান এবং তাদের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন সহ সভাপতি মাওলানা আহমদ হোসাইন, মাওলানা নূর আহমদ কাসেমী, সহ সাধারণ সম্পাদক মাওলানা সুহাইব আহমদ, অর্থ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা আবদুল্লাহ, প্রচার সম্পাদক মাওলানা আশিকুর রহমান প্রমুখ।

৩ মার্চ বেফাকুদ্দিনিয়ার প্রতিনিধি সম্মেলন ও পুরস্কার বিতরণী

বেফাকুল মাদারিসিদ্বীনিয়া বাংলাদেশ (জাতীয় দ্বীনি মাদরাসা শিা বোর্ড) আগামী ৩রা মার্চ রোজ শনিবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বোর্ড অফিস সংলগ্ন, রাজধানীর ঐতিহ্যবাহী দ্বীনিশিা প্রতিষ্ঠান জামিআ ইক্বরা বাংলাদেশ মিলনায়তনে বোর্ডের ১ম কেন্দ্রীয় পরীায় সকল স্তরে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অধিকারীদের জন্য বোর্ড ঘোষিত হজ্জ ও উমরা সহ আকর্ষণীয় পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান করতে যাচ্ছে।
উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য সদয় সম্মতি প্রদান করেছেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জনাব আলহাজ আসাদুজ্জামান খান কামাল এম, পি।
সভাপতিত্ব করবেন আল্লামা আশরাফ আলী হাফিযাহুল্লাহ, কো-চেয়ারম্যান আলহাইআতুল উলইয়া লিল জামিআতিল ক্বাওমিয়্যা ও সিনিয়র সহ-সভাপতি বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়্যা বাংলাদেশ। উক্ত মহতি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য ঢাকার সকল মাদরাসার মুহতামিম-আসাতিযায়ে কেরাম, বোর্ডের সকল জেলার প্রতিনেতৃবৃন্দকে আহব্বান করেছেন বোর্ডের চেয়ারম্যান আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ ও মহাসচিব মুফতি মুহাম্মদ আলী।

রাখাইনের খুনীদের আন্তর্জাতিক আদালতে নেয়ার দাবি তিন নোবেলজয়ীর

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের নির্মূলে পরিকল্পিত গণহত্যা চালানো হচ্ছে অভিযোগ করে দোষীদের আন্তর্জাতিক আদালতে বিচারের মুখোমুখি করার দাবি জানিয়েছেন কক্সবাজার সফররত শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী তিন নারী।
নোবেল বিজয়ী ইরানের শিরিন এবাদি, ইয়েমেনের তাওয়াক্কুল কারমান ও যুক্তরাজ্যের মরিয়েড মুগুয়ার ফেব্রুয়ারি ২৭/ ০২/১৮ সোমবার কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করে এ দাবি জানান। কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করে তাওয়াক্কুল কারমান বলেন, মিয়ানমারে যা হচ্ছে তা গণহত্যা ছাড়া আর কিছু নয়। এরপরও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় চুপ থাকলে তা বিশ্বাবাসীর জন্য লজ্জার হবে। যারা অপরাধ করেছে তাদেরকে আন্তর্জাতিক আদালতে বিচারের মুখোমুখি করতে হবে।
১৯৭৬ সালে শান্তিতে নোবেল বিজয়ী মরিয়েড মুগুয়ার বলেন, রোহিঙ্গা নারীরা হত্যা-ধর্ষণ আর বর্বরতার যে বিবরণ দিয়েছেন, তাতে বোঝা যায় মিয়ানমারে পরিকল্পিত নিধনযজ্ঞ চলছে। এটা স্পষ্টভাবে গণহত্যা।
তিনি বলেন, মিয়ানমার সরকার আর সেনাবাহিনী রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে যা করছে, সেটা মিয়ানমার থেকে, ইতিহাস থেকে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে মুছে ফেলার পরিকল্পিত চেষ্টা মাত্র। মিয়ানমার সরকারের এই নীতিকে ধিক্কার জানাই।
শিরিন এবাদি বলেন, রোহিঙ্গা সঙ্কট শুরুর পর ছয় মাস পেরিয়ে গেলেও শরণার্থীদের ঢল থামছে না। বিপুল সংখ্যক শরণার্থীর কারণে বাংলাদেশের মানুষের ওপরও বড় ধরনের চাপ তৈরি হচ্ছে।
শিরিন এবাদি বাংলাদেশের ভূমিকার প্রশংসা করে বলেন, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে অপরাধের বিচার হতে হবে। দোষীদের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে নিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে পদপে নিতে হবে।

যুদ্ধবিরতি অকার্যকর; গৌতায় এখনো চলছে বিমানহামলা

জাতিসংঘ-ঘোষিত ও রাশিয়া কর্তৃক নির্ধারিত দৈনিক সকাল নয়টা থেকে দুপুর দুইটা পর্যন্ত যুদ্ধবিরতি লংঘন করে বাশারপ্রশাসনসহ খোদ রাশিয়া মঙ্গলবার নতুন করে বিমান হামলা চালিয়েছে, যাতে এক শিশুসহ ১২ জন নিহত হয় এবং প্রতিরোধী গোষ্ঠীগুলো বাশারপ্রশাসন, রাশিয়া ও তাদের মিত্রদের বিরুদ্ধে যুদ্ধবিরতি লংঘনের অভিযোগ করছে।
অন্যদিকে বাশারপ্রশাসন, রাশিয়া ও বিরোধী সশশ্র গোষ্ঠীগুলো পূর্ব গৌতার বেসামরিক মানুষদের নিরাপদে বেরিয়ে যাওয়ার জন্য করা ‘মানবিক বহির্গমন রুট’এর ওপর হামলার জন্য একে অপরকে দায়ী করছে।
মস্কে জানায়, তারা সিরিয়াবিষয়ক জাতিসংঘের সর্বশেষ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করছে। পাশাপাশি সিরীয় বিরোধীদেরকে বেসামরিক ব্যক্তিদের আটকে রেখে পরিস্থিতিকে জটিল করার অভিযোগ করেন।
আরো বলেন, ‘মানবিক বহর্গিমন রুট’ কার্যকর করাটা বিরোধীদের আচরণের ওপর নির্ভর করছে।
রাশিয়ার রিকাউন্সিলিং সেন্টার পূর্ব গৌতা নিয়ন্ত্রণকারী জায়সুল ইসলাম, আহরারুশ শাম, ফায়লাকুর রহমান ও জাবহাতুন নুসরাহকে গৌতার বেসামরিক মানুষদের বাধাপ্রদান ও পণবন্দীহিসেবে রাখার অভিযোগ করে।
রাশিয়ার রিকাউন্সিলিং সেন্টার আরো বলেছে, মঙ্গলবার সকালে যুদ্ধবিরতি শুরু হওয়ার সাথে সাথে ‘মানবিক বহির্গমন রুট’ এর ওপর যোদ্ধাদের অঞ্চল থেকে বাইশটি রকেট ছোড়া হয়, যা জায়সুল ইসলামসহ অন্যান্য গোষ্ঠী অস্বীকার করে।
পূর্ব গৌতা নিয়ন্ত্রণকারী জায়সুল ইসলাম বাশারপ্রশাসন, রাশিয়া ও তাদের মিত্রদের বিরুদ্ধে পূর্ব গৌতা ধ্বংসের জন্য জাবহাতুন নুসরাহ’র উপস্থিতিকে ছুতা হিসেবে ব্যাবহারের অভিযোগ করে।
যদিও ইতিমধ্যে গৌতার যোদ্ধারা জাবহাহতুন নুসরাহ, হাইআতু তাহরিরিশ শাম ও আল কায়েদাকে আগামী পনের দিনের মধ্যে বের করে দেবে, এ মর্মে জাতিসংঘ মহাসচিব ও নিরাপত্তাপরিষদের প্রধানের কাছে চিঠি দিয়েছে।
অন্যদিকে শাবাকাতু শাম জায়সুল ইসলামের চিফ অব স্টাফের মূখপাত্রের সূত্রে জানায়, মঙ্গলবার সকালে বাশারপ্রশাসনের সৈন্যরা গৌতায় প্রবেশের চেষ্টা করলে তাদের ৩৬ জন নিহত হয়। সূত্র : আলজাজিরা আরবি।

তালেবানকে রাজনৈতিক দল হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হবে : আশরাফ ঘানি

আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি জানিয়েছেন, তালেবানকে রাজনৈতিক দল হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার পরিকল্পনা করছে আফগান সরকার।
তালেবানকে মূল ¯্রােতে ফিরে আসার আহবান জানিয়ে আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি বলেন, যুদ্ধবিরতি চুক্তিতে সম্মতি হলে তালেবানকে রাজনৈতিক দল হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হবে। শান্তি ফেরাতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান। বুধবার ‘কাবুল প্রসেস কনফারেন্স’ এ তিনি এসব কথা বলেন।
আশরাফ ঘানি বলেন, শুধু রাজনৈতিক দল হিসেবে নয় তালেবানকে মূল¯্রােতে ফেরাতে নানাভাবে সাহায্য করছে আফগান সরকার। ইতিমধ্যে, বেশ কিছু তালেবান বন্দীকে মুক্তিও দেওয়া হয়েছে।
এছাড়াও কিছু তালেবান নেতার ওপর থেকে নজরবন্দি তুলে নেওয়া হয়েছে। এছাড়া, তালেবান সদস্য ও তাদের পরিবারদের পাসপোর্ট এবং ভিসা দেওয়ার অনুমতি দিচ্ছে সরকার। আফগানিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সালাউদ্দিন রাব্বানি বলেছেন, আশা করা যাচ্ছে আফগানিস্তানে শান্তি ফিরবে। এর ফলে, সমগ্র বিশ্বও উপকৃত হবে। সূত্র : জি-নিউজ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ইসলামিক সেন্টার নির্মাণের অনুমোদন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কার্মেল এলাকায় মিউনিসিপ্যাল আপিল বোর্ড ইন্ডিয়ানা স্টেটে একটি মসজিদ এবং ইসলামিক সেন্টার নির্মাণের অনুমোদন দিয়েছে মিউনিসিপ্যাল আপিল বোর্ডের প থেকে গত ২৬ শে ফেব্রুয়ারি সোমবার অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে সহ¯্রাধিক নাগরিক অংশগ্রহণ করেছে। তারা এই মসজিদ নির্মাণের ব্যাপারে তাদের ব্যক্তিগত মতামত দিয়েছে।
এই মসজিদ এবং ইসলামিক সেন্টারটি ‘আস-সালাম’ ফাউন্ডেশনের প থেকে শেলবর্ণ রোডের নিকটে নির্মিত হওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু এটি নির্মাণের সঠিক সময় এখনও ঘোষণা করা হয়নি।
সোমবারের বৈঠকে অংশগ্রহণকারী এক ব্যক্তি বলেন, মসজিদ এমন একটি স্থান যেখানে আমাদের সন্তানেরা নামাজ আদায় করা ছাড়াও ইসলাম ধর্ম ও ইসলামিক বিজ্ঞানের সাথে পরিচিত হবে।
আস-সালাম ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তাগণ জানিয়েছেন, মসজিদ এবং ইসলামিক সেন্টারটি নির্মাণ করতে তিন বছর সময় লাগবে। সূত্র : ইকনা
সূত্র : দৈনিক সংবাদপত্র

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Hit Counter provided by Skylight