দেশ বিদেশের খবর

Des-Bideser Khobor copy

মালয়েশিয়ায় চালু হলো প্রথম ইসলামি ফ্লাইট
মালয়েশিয়ায় চালু হয়েছে প্রথম ইসলামি ফ্লাইট। কুয়ালালামপুর বিমান বন্দর থেকে ১৫০ জন যাত্রী নিয়ে ‘রায়ানি এয়ার’-র একটি বিমান দেশটির পর্যটন কেন্দ্র ‘লাঙ্গাওয়ি’তে গেছে। ইসলামি অনুশাসন মেনে ফ্লাইট পরিচালনা করা হচ্ছে এবং মহিলা ক্রুদের সবাই হিজাব বা ইসলামী শালিন পোশাক পরে যাত্রীদের সেবা দিচ্ছেন। বিমান কর্তৃপক্ষ সম্পূর্ণ হালাল খাবার পরিবেশন করছে। কোন ধরনের মদ সরবরাহ করা হচ্ছে না। এছাড়া যাত্রা শুরু হচ্ছে কুরআন তেলাওয়াত ও দোয়ার মধ্যদিয়ে।

অবশেষে ওমরার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার
মানব পাচারের অভিযোগে নয় মাস ধরে বন্ধ রাখার পর বাংলাদেশিদের ওমরাহ ভিসা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি আরব। গত ১৪ ডিসেম্বর সৌদি কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে এক চিঠিতে ওমরাহ ভিসা খুলে দেওয়ার তথ্য জানিয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক চিঠিতে ধর্ম মন্ত্রণালয়কে বিষয়টি অবহিত করেছে বলে জানিয়েছেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হুসাইন।
তিনি বলেন, আগামী বছরের ওমরাহ কার্যক্রম পরিচালনায় প্রাথমিকভাবে ৭০টি হজ এজেন্সির তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।
আনোয়ার বলেন, ‘বাংলাদেশের তিনশ হজ এজেন্সি থাকলেও ২০৪টি বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ রয়েছে। যেসব এজেন্সির বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ নেই তাদের ওমরাহ কার্যক্রম পরিচালনার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।’ হজের নামে মানব পাচারের অভিযোগে গত মার্চ মাস থেকে বাংলাদেশিদের ওমরাহ ভিসা দেওয়া বন্ধ রেখেছিল সৌদি আরব।

গাম্বিয়াকে ‘ইসলামি প্রজাতন্ত্র’ ঘোষণা করলেন প্রেসিডেন্ট জাম্মে
পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া জাম্মে তার মুসলিম অধ্যুষিত দেশকে ‘ইসলামি প্রজাতন্ত্র’ ঘোষণা করেছেন। তিনি বলেছেন, গাম্বিয়ার জনগণের ‘ধর্মীয় পরিচয় ও মূল্যবোধ’ সমুন্নত রাখতে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এ ছাড়া, এর ফলে তার দেশে সাবেক ঔপনিবেশিক শাসনামলের সব স্মৃতিচিহ্ণ মুছে যাবে বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি। এক টেলিভিশন ভাষণে প্রেসিডেন্ট জাম্মে একই সঙ্গে বলেছেন, দেশে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ঘোষণা করা হলেও নতুন করে কোনো পোশাক আইন ঘোষণা করা হবে না এবং অমুসলিমরা স্বাধীনভাবে তাদের ধর্মকর্ম পালন করতে পারবেন।
গাম্বিয়ার মোট জনসংখ্যার শতকরা ৯০ ভাগেরও বেশি মুসলমান। সাবেক ব্রিটিশ উপনিবেশের অন্তর্ভূক্ত দেশটির বৈদেশিক মুদ্রা আয়ের প্রধান উৎস পর্যটন খাত। সাম্প্রতিক সময়ে পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে গাম্বিয়ার সম্পর্কে তিক্ততা সৃষ্টি হয়েছে। দেশটির মানবাধিকার পরিস্থিতি ভালো না থাকার অজুহাতে গত বছর ইউরোপীয় ইউনিয়ন সাময়িকভাবে গাম্বিয়ায় অর্থসাহায্য বন্ধ করে দিয়েছে। ইয়াহিয়া জাম্মে গত ২১ বছর ধরে দেশটির প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করছেন।
টেলিভিশন ভাষণে তিনি আরো বলেছেন, দেশের বেশিরভাগ মানুষ মুসলমান হওয়া সত্ত্বেও গাম্বিয়া উপনিবেশবাদী আইনে চলতে পারে না। তিনি ২০১৩ সালে কমনওয়েলথ থেকে তার দেশকে বের করে আনেন একথা বলে যে, ওই সংস্থা নব্য-উপনিবেশাবাদী সংস্থায় পরিণত হয়েছে।#

যুক্তরাষ্ট্রে মুসলমানদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার দাবি ট্রাম্পের
যুক্তরাষ্ট্রে মুসলমানদের প্রবেশের উপর পুরোপুরি নিষেধাজ্ঞা আরোপের দাবি জানিয়েছেন রিপাবলিকান পার্টির প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্প। ক্যালিফোর্নিয়ার বারনারদিনোয় বন্দুকধারী এক মুসলমান দম্পতির প্রাণঘাতী হামলার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি সোমবার এই আহ্বান জানান। গত সপ্তাহে ওই দম্পতির হামলায় ১৪ জন নিহত হয়।
এদিকে ট্রাম্পের এই বক্তব্যে কড়া সমালোচনার করে একে অ-মার্কিনসুলভ বক্তব্য বলে মন্তব্য করেছে হোয়াইট হাউজ।

ট্রাম্পের মুসলিমবিদ্বেষী মন্তব্যে বিশ্বব্যাপী নিন্দার ঝড়
মুসলমানদের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছেন দেশটির রিপাবলিকান দলের সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার ওই মন্তব্যে বিশ্বব্যাপী নিন্দার ঝড় উঠেছে। সারাবিশ্বের মুসলমানরা এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। সেই নিন্দায় সামিল হয়েছে হোয়াইট হাউস, পেন্টাগন, ব্রিটিশ ও ফরাসী নেতা এবং জাতিসংঘ উদ্বাস্তু‘ বিষয়ক সংস্থা। যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতির অঙ্গন হয়ে উঠেছে সমালোচনার ঢেউয়ে উত্তাল। ফেসবুক, টুইটারে চলছে তুমুল আলোড়ন।
কেউ কেউ এমনও বলেছেন যে, ট্রাম্পের মুখে হিটলারের প্রতিধ্বনি শোনা যাচ্ছে। বিপুল সমালোচনার মুখে ট্রাম্প রিপাবলিকান দল ছেড়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করতে পারেন বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন।
যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়, বিশ্বের নাগরিকবৃন্দ, রাজনীতিক এবং উদ্বাস্তু‘ বিষয়ক কর্মকর্তারা যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান দলের প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থীতার দৌড়ে এগিয়ে থাকা ট্রম্পের মন্তব্যকে ঘৃণা সৃষ্টিকারী মন্তব্য বলে অভিহিত করেন এবং এটি সাম্প্রতিক কয়েক সপ্তাহে দেশটিতে বিরাজমান ইসলামভীতি জনিত পরিস্থিতিকে আরও নাজুক করে তোলার ইঙ্গিতবহ বলে মন্তব্য করেন।
মিসরের সরকারী ধর্মীয় সংস্থা ‘দার আল-ইফতা ট্রাম্পের মন্তব্যকে ‘ঘৃণাপ্রসূত বক্তৃতাবাজী’ বলে মন্তব্য করেছে।
এদিকে জাতিসংঘ উদ্বাস্তু বিষয়ক সংস্থার একজন মহিলা মুখপাত্র ট্রাম্পের মন্তব্যে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, ওই মন্তব্য উদ্বাস্তুদের পুনর্বাসনের চলমান প্রক্রিয়াকে ভন্ডুল করতে পারে।
উল্লেখ্য, রিপাবলিকান দলের অন্য একজন মনোনয়ন প্রত্যাশী বেন কারসন ট্রাম্পের প্রস্তাবের বিরোধিতা করে বলেছেন, এটা করা ঠিক হবে না।

বিএসএফ সদস্যদের প্রশিক্ষন দিচ্ছে বিজিবি
সীমান্তে অপরাধ দমনসহ নিরাপত্তা নিশ্চিতকরনের লক্ষ্যে ঊভয় দেশের সীমান্ত রক্ষি বাহিনীর সিনিয়র কর্মকর্তা ও সদস্য পর্যায়ে যৌথ প্রশিক্ষন কার্যক্রম গত কিছু দিন শেস হয়েছে। এ প্রশিক্ষন উভয় দেশের সীমান্ত সুরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। সূত্রে প্রকাশ, বেশ কয়েক বছর থেকে উভয় দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যেকার যৌথ প্রশিক্ষন কার্যক্রম শুরু হয়। এ কর্মসুচীর আওতায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরাও ভারতে গিয়ে যৌথ প্রশিক্ষনে অংশ নেন। সর্বশেষ যৌথ প্রশিক্ষনটি শুরু হয় গত ৬ ডিসেম্বর থেকে। সম্পন্ন হয় গত ১০ ডিসেম্বর। বিজিবির একমাত্র ট্রেনিং সেন্টার বাইতুল ইজ্জত বর্ডার গার্ড ট্রেনিং সেন্টার এন্ড স্কুলের বীরশ্রেষ্ট মুন্সি আব্দুর রউফ হলে অনুষ্ঠিত এ প্রশিক্ষনে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ এর ১৬ জন কর্মকর্তা, ১৪ জন অন্যান্য পদবীর সদস্য ও ৪ জন বিজিবি সদস্য মিলিয়ে মোট ৩৪ জন অংশ নেন। প্রশিক্ষনের সমাপনী দিনে অংশ নেওয়া সদস্যদের সনদ প্রদান করেন ট্রেনিং সেন্টারের কমান্ড্যান্ট ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ হোসেন পিএসসি। চার দিনে টানা এ প্রশিক্ষণ কোর্সে প্রশিক্ষক হিসেবে বিজিবির উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ছাড়াও এ প্রশিক্ষনে মাদকদ্রব্য নিযন্ত্রন অধিদপ্তর, পুলিশ, কাষ্টমস ও আর্ন্তজাতিক রেডক্রস কমিটির উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বক্তব্য রাখেন। ফলে উভয় দেশের প্রশিক্ষনার্থীদের সীমান্ত সুরক্ষার অভিন্ন লক্ষে সীমান্তে চোরাচালান প্রতিরোধ, মাদক, অস্ত্র, নারী ও শিশু পাচার, অবৈধ সীমান্ত অতিক্রমসহ সব ধরনের সীমান্ত অপরাধ প্রতিরোধে কৌশলগত দক্ষতা অর্জনের পাশপাশি এসব প্রশিক্ষণ উভয় বাহিনীর মধ্যে পারস্পরিক আস্থা, বন্ধুত্ব ও সৌহার্দপূর্ণ সুসর্ম্পক আরো জোরদার হবে।
যুবককে আত্মহত্যার মুখ থেকে ফেরালেন প্রেসিডেন্ট
সংসারের অভাব-অনটন সামলাতে না পেরে ব্রিজ থেকে ঝাঁপিয়ে আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন এক তুর্কি যুবক। সে অনুযায়ী ইস্তানবুলের একটি ব্রিজের ওপর ওঠেন তিনি। কিন্তু ঝাঁপিয়ে পড়ার আগেই সেখানে চলে আসে দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান।
যুবককে আত্মহত্যা থেকে ফেরাতে উঠে পড়ে লাগেন প্রেসিডেন্সিয়াল গার্ডরা। খ্রিস্টান ধর্মালম্বীদের বড় দিনে রুদ্ধশ্বাস সেই ঘটনার ছবিই প্রকাশ করেছে তুরস্কের একটি সংবাদসংস্থা। গাড়িতে তাঁর জন্য দেশের প্রেসিডেন্ট অপেক্ষা করছেন।
তার দেশের প্রেসিডেন্ট তাকে ডাকছে একথা শুরুতে কিছুতেই মানতে চাইছিল না ওই যুবক। শেষপর্যন্ত তাঁকে বুঝিয়ে প্রেসিডেন্টের কাছে নিয়ে আসেন রক্ষীরা। এরপর এরদোগান তাকে সাহায্যের আশ্বাস দিলে বাড়ি ফিরে যান তিনি।

রোগমুক্ত থাকতে প্রতিদিন খেজুর খান
খেজুর পছন্দ করে না এমন লোক পাওয়া যাবে না। তবে সচরাচর এই ফলটি না খেলেও বিভিন্ন উপলক্ষে খাওয়া হয়। খেজুরে অনেক গুণ রয়েছে। যেমন আছে- উচ্চমানের লোহা ও ফ্লোরিন। ভিটামিন ও খনিজের উৎস এ ফলটি প্রতিদিন খেয়ে কমাতে পারেন কোলেস্টেরলের মাত্রা। প্রতিরোধ করতে পারেন নানারকম অসুখ-বিসুখ।
বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, মিষ্টি স্বাদের এ ফলটিতে ফ্যাটের পরিমাণ কম বলে এটি কোলেস্টেরল কমায়। এতে রয়েছে প্রোটিন, ডায়েট্রি ফাইবার, ভিটামিন বি-১, বি-২, বি-৩, বি-৫ ও ভিটামিন এ। গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন মাত্র তিনটি খেজুর খেয়ে বিভিন্ন প্রকার শারীরিক সমস্যা কাটানো সম্ভব। এড়ানো সম্ভব প্রসবকালীন ঝুঁকির মাত্রা। দ্রবণীয় ও অদ্রবণীয় ফাইবার এবং বিভিন্ন প্রকার অ্যামিনো এসিড থাকায় খেজুর হজম প্রক্রিয়া উন্নত করে।  প্রাকৃতিক গ্লুকোজ, সুক্রোজ ও ফ্রুক্টোজ রয়েছে বলে এটি এনার্জি বুস্টার হিসেবে পরিচিত। লোহার উৎকৃষ্ট উৎস বলে যাদের অ্যানিমিয়া রয়েছে তারা নিয়মিত খেজুর খান। ফ্লোরিন সমৃদ্ধ খেজুর দাঁতের ক্ষয়রোধে সহায়ক। শরীর ঝরঝরে রাখতে সারারাত দুধে বিচি ছাড়ানো খেজুর ভিজিয়ে রাখুন। সকালে মিক্সারে ব্লেন্ড করে নিন। খাওয়ার সময় মধু ও এলাচগুঁড়া ব্যবহার করতে পারেন। ওজন বাড়ানোর ক্ষেত্রে এটি বিশেষ ভূমিকা রাখে।

২ হাজার বছরের পুরনো কফিনে স্বর্ণ!
চীনের পশ্চিমাঞ্চলের একটি কফিন থেকে বেশকিছু মূল্যবান বস্তুর সন্ধান পাওয়া গেছে। এগুলো হান রাজ বংশের অন্তর্ভুক্ত  বলে দাবি প্রতœতাত্ত্বিকদের। লক্ষণীয় হলো, বস্তুগুলোর মধ্যে প্রচার স্বর্ণ ও মেয়েদের অলংকার রয়েছে যেগুলো ২ হাজার বছরের পুরনো বলে ধারণা করা হচ্ছে।
চীনা সংবাদমাধ্যম শিনহুয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, নানছাং শহরের পূর্ব চীনের চিয়াংসি প্রদেশের রাজধানীর কাছাকাছি হায়হুংহু নামের এক সমাধিতে ওই কফিনটির সন্ধান পান প্রতœতাত্ত্বিকদের একটি দল। কফিনে ২৩ সেন্টিমিটার লম্বা, ১০ সেন্টিমিটার চওড়া এবং ০.৩ সেন্টিমিটার পুরত্বের স্বর্ণের পাত পাওয়া গেছে।
প্রতœতাত্ত্বিকদের দাবি, কফিনটির ভেতর এবং বাইরের দিকে স্বর্ণ দিয়ে কারুকাজ করা। ৩.৪ মিটার দৈর্ঘ্য এবং ১.৬ মিটার প্রস্থের কফিনটি শতভাগ সুরক্ষিত অবস্থায় ছিল। এর ভেতরে থাকা স্বর্ণগুলোও সুরক্ষিত অবস্থায় পাওয়া গেছে। কফিনের পৃষ্ঠতলের জটিল অঙ্কন দেখেই মূলত এর রাজকীয় সূত্র সম্পর্কে ধারণা করেন সংশ্লিষ্টরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Hit Counter provided by Skylight