জীবন সয়াহ্নে প্রভুর প্রেমে পাগল এক তাপসী- তামান্না মুহাম্মদ

হযরত মুআযা রহ. এর মৃত্যুমুখে হাসি
এক বিখ্যাত তাপসী নারী হযরত মুআযা আদাবিয়্যা রহ.। বর্ণিত আছে, প্রতিটি রাতের সূচনাতেই সে নিজেকে নিজে এই বলে প্রস্তুত করতো, হে মুআযা! এটাই তোমার জীবনের সর্বশেষ রাত। আগামীকালের সূর্য দেখা তোমার ভাগ্যে আর জুটবে না। কিছু যদি করতে চাও তাহলে এই রাতেই করে নাও।
অতপর মুসল্লায় বসে পড়তেন। ইবাদত করতে করতে মুসাল্লায় ঘুমিয়ে পড়তেন।  আবার জেগে ওঠতেন আবার ডুবে যেতেন ইবাদতে। নিজেকে আবারও শুধরাতেন, এই রাতই তোমার শেষ রাত। আগামীকালের  সূর্যোদয় হয়তো তুমি দেখবে না। যদি কিছু করতে হয় এখনই করে নাও। এভাবে সারা রাত মগ্ন থাকতেন ইবাদতে। যখন মৃত্যু ঘনিয়ে এলো তখন তিনি কাঁদতে লাগলেন। পর মুহূর্তে আবার হাসতে লাগলেন। উপস্থিত মেয়েরা জিজ্ঞেস করলো, কাঁদলেনই বা কেন আবার হাসলেনই বা কেন?
তিনি বললেন, কেঁদেছি এই জন্য- আজ থেকে আমি আর কখনও নামায পড়তে পারবো না, রোযা রাখতে পারবো না। নামায রোযার বিরহের এই চিন্তা আমাকে কাঁদতে বাধ্য করছে। আর হেসেছি এজন্য (তাঁর স্বামী ছিলেন একজন উঁচুস্তরের তাবেঈ। নাম ছিল সিলআ ইবনুল উশাইম রহ.। তিনি আল্লাহর পথে জিহাদ করতে গিয়ে শাহাদতবরণ করেছিলেন।) আমার স্বামী আমার সামনে দাঁড়িয়ে আছে। আমাকে বলছে, তোমাকে নিতে এসেছি। এই কারণে হাসছি। আল্লাহ তাআলা আমাকে আমার স্বামীর সাথে মিলিত করছেন। তিনি আমার বারান্দায় দাঁড়িয়ে আছেন। আর আমার দিকে হাত প্রসারিত করে বলছেন- তোমাকে নিতে এসেছি। এ কথা বলেই তিনি জীবনের শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেনে।
শিক্ষা : যারা আল্লাহকে পেতে চায় তারা তো সর্বক্ষণই আল্লাহর ধ্যানে মগ্ন থাকেন। বাহ্যিকভাবে তাদেরকে দুনিয়ার কাজে লিপ্ত দেখা গেলেও তাদের অন্তরে সর্বদায় আল্লাহর প্রেম ভালবাসা বিরাজ করে থাকে। আর যেহেতু নামায প্রভুর সাথে বান্দার মিলনসেতু, নামাযে দাঁড়ালে যেহেতু আল্লাহর সাথে কথোপকথন করার মজা পাওয়া যায়। ফলে এর থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়া আল্লাহর খাঁটি বান্দারা সহ্য করতে পারেন না। রাসূল সা. বলেছেন- তোমরা দুনিয়ার বুকে এমনভাবে অবস্থান কর যেন তুমি নিঃস্ব বা মুসাফির। আল্লাহর ওলীরা সর্বদায় উল্লেখিত হাদীসের উপর আমল করার জন্য নিজে সর্বদায় প্রস্তুত রাখতেন। যে কোন সময় মৃত্যু ডাক এসে গেলেই যেন চলে যেতে পারেন। তাই আসুন আমরাও দুনিয়ার ঝামেলা হতে মুক্ত হয়ে সর্বদায় আখেরাতের প্রস্তুত নিয়ে থাকি। আল্লাহ আমাদের তাওফিক দান করুন। আমিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Hit Counter provided by Skylight